হাল্ট প্রাইজ ঢাবি’র গ্রান্ড ফিনালে কাল।

0
331

OURBANGLANEWS DESK।।

হাল্ট প্রাইজ ঢাবি’র গ্রান্ড ফিনালে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যম্পাসে প্রায় দুই মাস ধরে চলমান হাল্ট প্রাইজ গ্লোবাল কম্পিটিশনের ক্যম্পাস রাউন্দের পর্দা নামতে যাচ্ছে আগামী ৫ই ডিসেম্বর। গ্র্যান্ড ফিনালেটি সকল প্রকার দর্শকদের জন্য উন্মুক্ত করে দেয়া হয়েছে।

পজিটিভ বাংলাদেশের আয়োজনে হাল্ট প্রাইজ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টাইটেল স্পন্সর হিসেবে আছে গার্ডিয়ান লাইফ ইনস্যুরেন্স, সহযোগিতায় আছে ইএমকে সেন্টার, ইয়ুথ এঙ্গেজমেন্ট পার্টনার হিসেবে আছে পোডিয়াম এবং ফুড পার্টনার হিসেবে আছে সুইটসিন কফিস।ব্রডকাস্ট মিডিয়া পার্টনার হিসেবে আছে ‘channel 24 ‘ , প্রিন্ট মিডিয়া হিসেবে আছে  ‘The Daily Sun, New Age, The Business standard’।

অনলাইন মিডিয়া পার্টনার হিসেবে আছে ‘কালের সমাচার’, ‘Hifi Public’,  রেডিও পার্টনার হিসেবে আছে  ‘Radio capital ‘।

৫ ডিসেম্বর বেলা ২ টা থেকে সন্ধ্যা ৬ টা পর্যন্ত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যবসায় শিক্ষা আনুষদের হলে হাল্ট প্রাইজ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ২০২০ এর গ্র্যান্ড ফাইনাল রাউন্ড অনুষ্ঠিত হবে। ‘পজেটিভ বাংলাদেশ’ এর আয়োজনে এর আগে অক্টোবরে অনলাইন রাউন্ডে আইডিয়া সাবমিশনের মাধ্যমে ঢাবি ক্যম্পাসে আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু হয় হাল্ট প্রাইজ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ২০২০ এর যাত্রা। বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মধ্য থেকে ৮৩ টি টিম এই প্রতিযোগিতায় নিজেদের আইডিয়া জমা দেয়।

এরই মধ্যে নভেম্বর মাসে আয়োজক পজিটিভ বাংলাদেশ ঢাবির আরসি মজুমদার কনফারেন্স হলে আয়োজন করে হাল্ট প্রাইজের ইনফো সেশনের। এই ইনফো সেশনে উপস্থিত প্রায় ১০০ জন আগ্রহি শিক্ষার্থীদের সামনে হাল্টের অভিজ্ঞতা তুলে ধরেন ঢাবির ক্যম্পাস ডিরেক্টর এ কে এম তওসীফ তানজীম আহমেদ, হাল্ট প্রাইজের রিজিওনাল ডিরেক্টর এন্ড কমিউনিটি বিল্ডার এস এম ফাহিম শাহরিয়ার, হাল্ট প্রাইজ ২০১৯ এর গ্লোবাল ফাইলালিস্ট টিম সেইফহুইল, ঢাবি থেকে ২০১৮ সালে হাল্ট প্রাইজের রিজিওনালস এ অংশ নেয়া খালিদ বিল ইসলাম।

এবারের হাল্ট প্রাইজের মূল থিম হচ্ছে এমপাওয়ারিং আর্থ। তাই এ আয়োজনে দেশের পরিবেশভিত্তিক গ্রিন স্টার্ট আপ গারবেজম্যানের মার্কেটিং অফিসার মাখজানুল ইসলাম প্রাঙ্গনও নিজেদের অভিজ্ঞতা তুলে ধরেন। ৮৩ টি আইডিয়ার মধ্যে থেকে অনলাইন রাউন্ডের বিচারক, ইএমকে সেন্টারের অন্ত্রাপ্রনারশিপ কোওডিনেটর শারমিন আক্তার শাকিলা ২২ টি টিমকে সেমি ফাইনাল রাউন্ডের জন্য নির্বাচিত করেন।

পরবর্তীতে ইএমকে সেন্টারে অনুষ্ঠিত সেমিফাইনাল রাউন্ডে নির্বাচিত দলগুলো বিচারকের সামনে নিজেদের পরিকল্পনাগুলো উপ্সথাপন করেন। এই রাউন্ডে বিচারকের ভূমিকায় ছিলেন ক্যারিয়ার কি? এর সিইও সাজ্জাদ হোসাইন মুকিত, ঢাকা বিশবিদ্যালয়ের ইন্সটিটিউট অফ ডিজাস্টার ম্যানেজমেন্ট এন্ড ভালনারিবিলিটি স্টাডিজের লেকচারার মোহাম্মাদ আওফা ইসলাম ও ফিউচার সিটি সামিটের সিইও সাদমান সাদাব।

নির্বাচকেরা সেদিনই সেমি ফাইনাল রাউন্ডের ফলাফল জানিয়ে দেন। নির্বাচকদের ফলাফলের ভিত্তিতে ১১ টি দল বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ের ফাইনাল রাউন্ডে উরতীন হয়। ফাইনাল রাউনন্ডে উরতিন দলগুলোর অধিক পরিচর্যার জন্য পজিটিভ বাংলাদেশ নভেম্বরের শেষ থেকে ঢাকার ইএমকে সেন্টারে আয়োজন করে টানা ৫ ঘণ্টাব্যাপী দীর্ঘ কর্মশালা সেশনের, যেখানে শিক্ষার্থীদের সাথে হাল্টের অভিজ্ঞতা, কিভাবে আইডিয়া পিচ করতে হবে থেকে সকল খুটিনাটি ও অন্যান্য লক্ষনীয় বিষয়গুলো নিয়ে কথা বলে বাংলাদেশ থেকে এ বছরের হাল্টের গ্লোবাল ফাইনালিসট হবার গৌরব অর্জন করা বিইউপির দল সেইফহুইল। বর্তমানে দলগুলো ব্যস্ত আছে তাদের শেষ মুহূর্তের পস্তুতিতে।

এরই মধ্যে নভেম্বরের ২৭ তারিখে হাল্ট প্রাইজ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ফেসবুক পেজ থেকে পোস্ট করা হয় দলগুলোর এক মিনিট বিশ সেকেন্ডের ভিডিও। এই ভিডিও গুলোর ফেসবুক শেয়ার কমেন্ট ও রিয়াকটের সংখ্যাও প্রভাব ফেলবে সবোপরি তাদের পারফর্মেন্সের ওপর।

কাল ৫ তারিখ রোজ বিহস্পতিবার ক্যাম্পাসের ব্যাবসায় শিক্ষা আনুষদের কনফারেন্স হলে জমকালো আয়োজনের মধ্যে দিয়ে ইতি টানা হবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এই বছরের হাল্ট প্রাইজ ক্যাম্পাস রাউন্ডের। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদের ডিন প্রফেসর শিবলী রুবায়েত ইসলাম।

গ্র্যান্ড ফিনালেতে সম্মানিত বিচারক হিসেবে থাকছেন পাটের সোনালি ব্যাগের আবিষ্কারক এবং বাংলাদেশ এটমিক এনার্জি কমিশনের চিফ সায়ান্টিফিক অফিসার প্রফেসর ড. মুবারক আহমেদ খান, আইসিটি মিনিস্তি এবং স্টার্ট আপ বাংলাদেশের ইনভেজমেন্ট এডভাইজার টিনা জাবিন,

ইউএনডিপি ডিজিটাল খিচুরি চ্যালেঞ্জের কোওরডিনেটের সিরধাথ প্রবাল, ইউএনডিপি ইয়ুথ কো-ল্যাবের কোওরডিনেটের ফায়েজ আহমেদ, আইউএলসি সিকিউরিটিজের এনালিস্ট তনয় কুমার রায়, অয়াইগ্যাপের কান্ট্রি ডিরেক্টর ইরাদ কাওসার এবং সিংগুলারিটি লিমিটেডের কো-ফাউন্দার ও বল্ডস্টাইএর ডিরেক্টর যাফির শাফিঈ।

একইদিনে হাল্ট প্রাইজের ক্যাম্পাস রাউন্ডের গ্র্যান্ড ফিনালেতে পজিটিভ বাংলাদেশ এবং হাল্ট প্রাইজ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় যৌথভাবে প্রকাশ করতে যাচ্ছে ইয়ুথ ম্যাগাজিন।

সবার জন্য উন্মুক্ত হওয়ায় পুরো ঢাবি ক্যম্পাস জুড়ে ঢাবির হাল্ট প্রাইজ গ্র্যান্ড ফিনালের জন্য বেশ বড় একটি হাইপ কাজ করছে। ইভেন্টের বিস্তারিত পজিটিভ বাংলাদেশ এবং হাল্ট প্রাইজ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফেসবুক পেজে পাওয়া যাবে

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে