জনপ্রিয়তার শীর্ষে সিঙ্গাপুর জুস এন্ড কফি বার

0
164

সিঙ্গাপুর জুস এন্ড কফি বার

কাবাতুজ্জামান, কালের সমাচার।।

দিন দিন সবার কাছে জনপ্রিয় হয়ে উঠছে ঢাকার মোহাম্মদপুর টাউন হলের সিঙ্গাপুর জুস্ এন্ড কফি বার। খুব অল্প সময়ের মধ্যে জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে এই দোকান। প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ১১টা পর্যন্ত খোলা থাকে। সকাল থেকে সন্ধা পর্যন্ত ভীর লেগেই থাকে।

প্রায় ৪০ প্রকারের জুুস ও কফি পাওয়া যায় এই দোকানে। সারা বছরের ফলের জুসের যোগান দিয়ে থাকে এই দোকানটি। এখানে স্পেশাল আইটেমের মধ্যে রয়েছে আরাবিয়ান মিল্ক জুস্, বিভিন্ন ফলের মিক্সড জুস্, খেজুরের সেক, পেস্তা বাদামের সেক স্পেশাল, কাজু বাদাম স্পেশাল ও আরো রয়েছে নানা ধরনের ফলের জুস। এছাড়া ও রয়েছে কোল্ড কফি, হট কফি ইত্যাদি।

এখানে, একই সাথে পাওয়া যায় ফলের জুস ও কফি যেটা খেতে হয়তো অন্যখানে আলাদা আলাদা দোকানে যেতে হয়। শুধু নামেই নয়, স্বাদেও রয়েছে এর বেশ জনপ্রিয়তা। দিন দিন এর কদর বেড়েই চলেছে। এখানে ৩০ থেকে ৩০০ টাকার পর্যন্ত জুস ও কফি পাওয়া যায়। ঢাকা শহরের বিভিন্ন স্থান থেকে জুস ও কফি খেতে আসে নানা শ্রেণীর মানুষজন।

এখানে প্রতিদিন ৪০০ থেকে ১০০০ কাপ জুস ও কফি বিক্রি হয়। এই হিসাবে তার মাসিক আয় গড়ে ২ থেকে ২.৫ লাখ টাকা। কর্মচারীর বেতন দোকান ভাড়া ও অন্যান্য খরচ বাবদ মাসে ১ লাক টাকা খরচ হয়। বাকি টাকা লাভের খাতায় জমা হয়।

সিঙ্গাপুর জুস ও কফি বারে জুস খেতে এসেছিলেন মামুন ও তার ফ্যামিলি, তাদের সাথে কথা বলতে গিয়ে মামুন বলেন, ‘আমি এইখানে প্রায়ই জুস খেতে আসি। এখানে জুসের মান ও স্বাদ অন্য সব দোকানের থেকে আলাদা। দোকানের সবকিছুই যেন পরিপাটি সাজানো। এখানে প্রতিটি ফলের জুসের স্বাদ ও মান খুবই ভাল। ‘

জনপ্রিয় এই সিঙ্গাপুর জুস এবং কফি বার নিয়ে এক প্রশ্নে উত্তরে মালিক মোহাম্মদ আব্দুল কুদ্দুস বলেন ,

“এটি হলো আমাদের কষ্টের অর্জিত একটি ফল। জুসের ব্যবসায় সৎ থাকায় এটি করা। আমি সর্বদা আমার খদ্দেরদের ভাল মানের খাবার পরিবেশনের চেষ্টা করি। এখন পর্যন্ত আমার দোকানের খাবারের মান নিয়ে কোন অভিযোগ পাইনি। ”
আজ এই পর্যায় আসা নিয়ে জানতে চাইলে মালিক বলেন  ‘আমি ছোট একটি দোকান ঘর নিয়ে এই কাজ শুরু করেছিলাম। এখন এখানে দিন দিন খদ্দের বাড়ায় এটিকে বড় আকারে সাজানোর পরিকল্পনা রয়েছে এবং এর খাবার আইটেম বৃদ্ধি নিয়েও চিন্তা রয়েছে। ‘

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে