শীত এখন বাড়ির দ্বারে, বারবিকিউ না হলে কি চলে!!

0
220

ইফফাত, কালের সমাচার ডেস্ক।।

শীত এখন বাড়ির দ্বারে, বারবিকিউ না হলে কি চলে!!

শীত এখন বাড়ির দ্বারে। এই সময় মানুষের পোশাক-আসাকে যেমন পরিবর্তন লক্ষ্য যায়, খাবারের রুচিতেও ঠিক তেমনি পরিবর্তনের দেখা মেলে।

হালকা শীতের এই সময়টাতে বাড়ির খোলা জায়গায় অনেকেই করে থাকেন বারবিকিউ পার্টি। আসুন জেনে নেই কিভাবে ঘরে বসেই তৈরী করা যাবে বাজারের চেয়েও সুস্বাদু বারবিকিউ।

ছাদ কিংবা উঠোনের যেকোন প্রান্তে বসে আপনিও তৈরী করে ফেলতে পারেন মজাদার এই খাবার। চলুন জেনে নেই বারবিকিউ তৈরীর উপকরন ও প্রস্তুতি সম্পর্কে।

৮ জনের জন্য।

উপকরণঃ
-প্রায় দশটির মত ইট
-দেড় থেকে দুইকেজি পরিমান কয়লা
-একটি লোহার জালি বা নেট
-বারবিকিউ সস
-আগুন ধরানোর কেরোসিন
-পর্যাপ্ত বাতাস দেবার জন্য হাতপাখা অথবা টেবিল ফ্যান
-একটি ছোট ব্রাশ

রান্নার উপকরণঃ
-দুটো আস্ত মুরগী (প্রতিটি চার পিস করা হবে)
-বারবিকিউ সস (এক কাপ)
-আদাবাটা (চার টেবিল চামচ)
-রসুন বাটা (দুই টেবিল চামচ)
-ধনেগুড়ো (চার টেবিল চামচ)
-সরিষাগুড়ো (এক টেবিল চামচ)
-টকদই (দেড় কাপ)
-শুকনো মরিচগুড়ো (চার টেবিল চামচ)
-সরিষার তেল (আধাকাপ)
-লবণ (দুই টেবিল চামচ)

প্রণালীঃ
মুরগীর মাংশের টুকরোগুলো পরিষ্কার করে ধুয়ে ছুরি দিয়ে মাংশের গায়ে দুই-তিনটি আঁচড় দিতে হবে, যাতে করে মসলা ভিতরে ঢুকতে পারে। এরপর উপরে উল্লেখিত সবগুলো রান্নার উপকরণ একসাথে ভালোভাবে মাখিয়ে প্রায় বারো ঘন্টা ঢেকে রেখে দিতে হবে। প্রথম চার ঘন্টা অতিক্রম হবার পর ফ্রিজে রেখে দিলে ভালো।

ইট মাপমত সাজিয়ে জালি বা নেট উপরে বসিয়ে দিন। নিচে পরিমান মত কয়লা রেখে দিয়ে কেরোসিনের সাহায্যে কয়লায় আগুন ধরাবেন। আগুন ভালোমত ধরবার জন্য কিছুক্ষণ সময় লাগতে পারে।

অতঃপর মুরগীর মাংশের টুকরোগুলো সারি করে নেটের উপরে সাজিয়ে দিন। হাতপাখা অথবা টেবিল ফ্যান দিয়ে কয়লার দিকে বাতাস দিতে থাকুন। মাঝে মধ্যেই মাংশের টুকরোগুলো উল্টে-পাল্টে দিন।

সেই সাথে অল্প অল্প করে সস এবং সরিষার তেল একটি ব্রাশ দিয়ে মাখিয়ে দিতে থাকুন। পোড়া পোড়া ভাব হয়ে গেলে তুলে নিন পরিবেশনের জন্য বারবিকিউ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে