রহস্যজনক ভাবে শিশুগৃহকর্মির মৃত্যু।

0
425

মাহিন, OURBANGLANEWS DESK।

রাজধানীর উত্তরায় স্থানীয় বাসিন্দারা বিক্ষোভ করেছে শিশু গৃহকর্মীর মৃত্যুর খবরে। বৈশাখী নামের শিশুটির বয়স ছিল ১২ বছর।

২৬ মার্চ মঙ্গলবার তার মৃতদেহ দুপুরের দিকে, উদ্ধার করা হয় গলায় ফাঁস লাগা অবস্থায়। নাবিদ কামাল শৈবাল, পুলিশের উত্তরা বিভাগের উপকমিশনার নিশ্চিত করেছেন ঘটনার সত্যতা।

মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে জানা যায় শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত।

উত্তরা ৩ নম্বর সেক্টরের ১৮ নম্বর সড়কের ৫ নম্বর বাসায় ঘটেছে ঘটনাটি। পুলিশ জানায়, একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা রিফাত ফেরদৌস তাঁর স্ত্রী ও সন্তান নিয়ে থাকেন ওই ভবনের ছয়তলায়।

তিনি ঘরের দরজা বন্ধ পেয়ে খবর দেন, পুলিশকে। পুলিশ দরজা ভেঙে ঢুকে ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে বৈশাখীর। বৈশাখী গিয়েছিল তাদের গ্রামের বাড়িতে নওগাঁয়।

গত ২৫ মার্চ সোমবার, কয়েক দিন ছুটি কাটিয়ে কাজে যোগ দেয় সে। খবর পেয়ে ওই বাসায় যায় পরিবারের লোকজন। হত্যা করে বৈশাখীকে ঝুলিয়ে রাখা হয়েছিল বলে দাবী করেন তাঁরা।

মো. রেজা গাড়ি চালান পাশেই একটি বাসায়। তিনি জানান, ওই ভবনের সামনে স্থানীয় বাসিন্দারা অবস্থান নেন মেরে ঝুলিয়ে রাখা হয়েছিল বৈশাখীকে এমনন খবর ছড়িয়ে পড়ার পর।

তাদের বক্তব্য, এমনকি ঘটেছিল বাড়ি থেকে আসার পর, যে সে গলায় ফাঁস দেবে? বাড়ির সামনে আগুন জ্বালিয়ে দেয় বিক্ষুব্ধ লোকজন এবং ছুড়তে থাকে ইটপাটকেল। তারা ফায়ার সার্ভিসকেও সরিয়ে দেয়। পুলিশ পরে নিয়ন্ত্রণে আনে ঘটনা।

উত্তরার পুলিশ কথা বলেছেন শিশুটির বাবা-মায়ের সঙ্গে। তাঁরা প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন ব্যবস্থা নেওয়া হবে আইন অনুযায়ী।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে