মেয়েকে আড়াই বছর ধর্ষণ করে বাবা।

0
175

OURBANGLANEWS DESK।

অভিযোগ উঠেছে, কুমিল্লার দেবিদ্বার উপজেলায় সৎ বাবা অষ্টম শ্রেণি পড়ুয়া মেয়েকে টানা আড়াই বছর ধরে ধষর্ণে করেছে।

ভুক্তভোগী মেয়ে জানান এ ঘটনায় নিজের মায়ের যোগসাজশ রয়েছে।

অভিযুক্ত জাকির হোসেন মুরাদনগর থানার গোকল নগর এলাকার বাসিন্দা। পেশায় একজন গাড়িচালক।

স্থানীয়রা জানান, উপজেলার ইউসুফপুর ইউনিয়নে শিবপুর গ্রামে জাকির হোসেনের শ্যালিকা মর্জিনা বেগমের বিয়ে হয়।

১০ বছর আগে জাকির তার শ্যালিকার সঙ্গে আপত্তিকর অবস্থায় ধরা পড়লে, মর্জিনা বেগমকে তার স্বামী তালাক দেন।

দুই ছেলে ও দুই কন্যার জননী মর্জিনা তার বড় মেয়েকে নিয়ে বাবার বাড়ি চলে আসেন।

জাকির হোসেন এ ঘটনার পর শ্যালিকাকে বিয়ে করেন। জাকিরের পরিবার এই বিয়ে মেনে না নেওয়ায় শ্বশুরবাড়িতে বসবাস শুরু করেন।

এই সুযোগে জাকির তার সৎ মেয়েকে, তার মায়ের সম্মতিতে আড়াই বছর নিয়মিত ধর্ষণ করেন।

ভুক্তভোগী ওই স্কুলছাত্রী জানায়, তার সৎ বাবা, তাকে ঘুমের ওষুধ খাইয়ে ধর্ষণ করে এবং এ ঘটনার ভিডিও মুঠোফোনে ধারণ করে ভয়-ভীতি দেখিয়ে পরে একাধিকবার ধর্ষণ করে।

এ ঘটনায় তার মায়ের সহযোগিতা রয়েছে। তার মা অনেক গালিগালাজ এবং মারধর করতো, বাবার এই জঘন্য এ কাজে বাধা দিলে।

ভুক্তভোগীর নানা এ জঘন্য ঘটনায় মর্জিনা বেগমকে নিজের মেয়ে অস্বীকার করে বলেন, ভাবতেই পারছি না নিজের মা হয়ে এ কাজ করবে।

আমি এ ঘটনার সুষ্ঠু বিচার চাই।ঘটনা জানার পর শুক্রবার সকাল থেকে বিচারের দাবিতে এলাকার লোকজন বিক্ষোভ করছেন।

এ বিষয়ে জহিরুল আনোয়ার দেবিদ্বার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বলেন, ‘এ বিষয় এখন পর্যন্ত কোনো অভিযোগ পাওয়া যায়নি।

তবে অভিযোগ পেলে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’