ভারতীয় ক্রিকেটার অপহরনের অপরাধে গ্রেপ্তার!

0
328

ভারতীয় ক্রিকেটার অপহরনের অপরাধে গ্রেপ্তার!

কখনো জাতীয় দলে না খেললেও মুম্বাইয়ের ক্রিকেট মহলের এক পরিচিত নাম রবিন মরিস। প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে ম্যাচ খেলেছেন ৪২টার মতো। লিস্ট ‘এ’ ম্যাচ খেলেছেন পঞ্চাশটা, টি-টোয়েন্টি দুটি।

ভারতীয় এই ক্রিকেটার রবিন মরিসকে মুম্বাইয়ের এক ঋণ এজেন্টকে অপহরণ করার দায়ে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

তিন কোটি টাকা ঋণ দরকার, এ জন্য মুম্বাইয়ের এক এজেন্টকে দায়িত্ব দিয়েছিলেন ভারতীয় ক্রিকেটার রবিন মরিস। সে উদ্দেশ্যে এজেন্টকে কমিশন বাবদ মোটা অঙ্কের টাকাও দিয়েছিলেন তিনি। কিন্তু সে কাজটা করে দিতে পারেননি এজেন্ট। কাজ হয় নি তাই কমিশনের টাকা ফেরত চান মরিস। কিন্তু এজেন্ট সেই টাকা ফেরত দিতে অস্বীকৃতি জানান যার ফলে সেই এজেন্টকে অপহরণ করে টাকা আদায় করার পরিকল্পনা করেন মরিস ও তাঁর চার বন্ধু।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে মুম্বাই পুলিশকে এই তথ্যই দিয়েছেন এই ক্রিকেটার।

পরিকল্পনা অনুযায়ী সেই এজেন্টকে মুম্বাইয়ের কুরলা স্টেশনের কাছে এক রেস্টুরেন্টে আসতে বলেন মরিস। চার বন্ধুর সাহায্যে সে রেস্টুরেন্ট থেকে জোর করে এজেন্টকে তুলে নিয়ে নিজের বাসায় তোলেন মরিস। সেখান থেকেই এজেন্টের বাড়িতে ফোন করে টাকা দাবি করেন। এজেন্টের বাড়ির লোকজনই পরে পুলিশকে জানায় ঘটনাটা। পুলিশ পরে মরিসের বাসায় গিয়ে ৪৩ বছর বয়সী এজেন্টকে উদ্ধার করে।

এ ঘটনায় মরিস সহ পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে একাধিক ধারায় অপহরণ ও চাঁদাবাজির মামলা দায়ের করেছে মুম্বাই পুলিশ।

মরিসের এরকম কুকীর্তির কাহিনি কিন্তু এটাই প্রথম নয়। গত বছর মুম্বাইয়ের ঘরোয়া এক টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টে স্পট-ফিক্সিংয়ের অভিযোগ উঠেছিল তাঁর এবং পাকিস্তানের সাবেক ব্যাটসম্যান হাসান রাজার বিরুদ্ধে। আল-জাজিরার গোপন ক্যামেরায় ধরা পড়েছিলেন মরিস এ বিষয়ে আলোচনার সময়। এ নিয়ে চরম বিতর্কও উঠেছিল সেসময়।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে