বিজয় এক্সপ্রেসে ঢিল-ছিনতাই।

0
136

OURBANGLANEWS DESK।

এখন ট্রেনে ঢিল ছোড়ার প্রবণতা এত বেড়ে গেছে যে এটা চিন্তার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে।

ঢিলের আঘাতে রাজশাহী-ঢাকা আন্তঃনগর পদ্মা এক্সপ্রেসে শিশু জিসান মারাত্মক আহত হওয়ার দুদিনের মাথায় আবার একই ঘটনা বিজয় এক্সপ্রেসে।

ময়মনসিংহ থেকে চট্টগ্রাম চলাচল করে এই আন্তঃনগর ট্রেনটি। একদিন আগেই রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন আহ্বান জানিয়েছেন চলন্ত ট্রেনে ঢিল ছোড়া ব্যক্তিদের ধরিয়ে দেওয়ার।

বাংলাদেশ রেলওয়ে নড়েচড়ে বসেছে রেলে ঢিল ছোড়া থামানোয় করণীয় নিয়ে। কিন্তু বাস্তবে কার্যকর কোনো পদক্ষেপ দেখা যায়নি।

সচিত্র এই ঘটনাটি সোশ্যাল সাইটে তুলে ধরেছেন রেলওয়ের একজন কর্মকর্তা মোঃ মায়েন উল্লাহ।

তার ভাষ্যমতে, আঠারবাড়ি স্টেশন পার হওয়ার পর চট্টগ্রামগামী ৭৮৬ নং ডাউন বিজয় এক্সপ্রেসে দুর্বৃত্তদের ছোড়া পাথরের আঘাতে দুই যাত্রী মারাত্মক আহত হন। এদের একজনের ষাঠোর্ধ বয়স এবং অপরজন আনুমানিক চল্লিশের।

তখন মায়েন উল্লাহ জরুরি তারবার্তার মাধ্যমে ঢাকা কন্ট্রলকে অবহিত করে যাত্রী দুজনকে কিশোরগঞ্জ স্টেশনের স্টেশন মাস্টারের সহায়তায় প্রথমিক চিকিৎসা দিয়ে আবারও ট্রেন ছাড়েন।

কিন্তু বিজয় এক্সপ্রেসের যাত্রীদের জন্য অপেক্ষা করছিল আরও বিপদ। ভৈরব স্টেশন থেকে ট্রেন ছাড়ার আগমূহুর্তে ছিনতাইকারী এক যাত্রীর মোবাইল টান দিয়ে পালিয়ে যায়।

ওই যাত্রী মোবাইল উদ্ধারে নামলে ছিনতাইকারীরা তাকে ধাঁরালো চাপাতি দিয়ে এলোপাথারি কুপিয়ে পালিয়ে যায়।

ট্রেনের গতি বাড়ার আগে সেই আহত যাত্রী গাড়িতে উঠে। ট্রেন আখাউড়া গেলে সেই আহত যাত্রীকে জিআরপি পুলিশের সহায়তায় হাসপাতালে পাঠানো হয়।