ফণী এখন চলনবিলে।

0
169

OURBANGLANEWS DESK

ঘূর্ণিঝড় ফণী সাতক্ষীরা, খুলনা, যশোর অঞ্চল দিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করে এখন অবস্থান করছে নাটোরের চলনবিলে।

সেখানে ফণীর প্রভাবে বৃষ্টিপাত ও তীব্র বাতাস বইছে। বাংলাদেশে ৪ মে শনিবার সকাল ৬টায় প্রবেশ করে তা নাটোরের চলনবিলে এলাকায় প্রবেশ করে দুপুর দেড়টার দিকে।

এটি যেহেতু বাংলাদেশের মধ্যাঞ্চল দিয়ে অগ্রসর হচ্ছে, ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি এবং বজ্রসহ বৃষ্টিও হতে পারে তার যাত্রাপথের সব এলাকায়।

শামসুদ্দিন আহমেদ আবহাওয়া অধিদপ্তরের পরিচালক জানিয়েছিলেন তার সঙ্গে হতে পারে ভারী বর্ষণও।

ইতিমধ্যে ভারী বর্ষণ হয়েছে রংপুর, রাজশাহীতে। ভারী বর্ষণ হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে সিলেট, ময়মনসিংহ অঞ্চলে।

তবে, আবহাওয়া অধিদপ্তর জানিয়েছে শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় হিসেবে ফণী যাত্রা শুরু করলেও বর্তমানে তা পরিণত হয়েছে গভীর নিম্নচাপে।

আবহাওয়া অধিদপ্তরের বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, আরো উত্তর-উত্তরপূর্ব দিকে অগ্রসর হয়ে ঘূর্ণিঝড়টি দুপুর ১২টায় স্থল গভীর নিম্নচাপ আকারে পাবনা, টাঙ্গাইল ও ময়মনসিংহ অঞ্চল এবং এর পার্শ্ববর্তী এলাকায় অবস্থান করছিল।

আবহাওয়া অধিদপ্তর জানায় এটি অগ্রসর হতে পারে আরো উত্তর-উত্তরপূর্ব দিকে।

এদিকে, আবহাওয়া অধিদপ্তর সতর্কতা সংকেত দিয়েছে ঘূর্ণিঝড় ফণীর কারণে জারি করা বিপদ সংকেত নামিয়ে। আবহাওয়া অফিস মোংলা, পায়রা, চট্টগ্রাম সমুদ্রবন্দর ও কক্সবাজার উপকূলে তিন নম্বর সতর্ক সংকেত দেখিয়ে যেতে বলেছে বিপদ সংকেত নামিয়ে।