প্রেম প্রস্তাব প্রত্যাখ্যানে, স্কুলছাত্রীকে হাতুড়িপেটা।

0
146

OURBANGLANEWS DESK।

প্রেমের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলার গোবিন্দপুর গ্রামে অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী সুবর্ণা খানম (১৪) কে এক বখাটে হাতুড়িপেটা করেছে।

এ ঘটনায় পুলিশ একজনকে গ্রেপ্তার করেছে। ২৫ মে শনিবার সকাল ৬টার দিকে এ ঘটনা ঘটেছে।

ওই ছাত্রীর পরিবার সূত্রে জানা গেছে,

হাজী মোফাজ্জেল স্মরণী মাধ্যমিক বিদ্যাপীঠের অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী লাহুড়িয়া ইউনিয়নের ঝামারঘোপ গ্রামের মো. লিয়াকত মোল্যার মেয়ে সুবর্ণা খানমকে উত্ত্যক্ত করতো,

পার্শ্ববর্তী দিননাথপাড়া গ্রামের আজগারের বখাটে ছেলে ওবায়দুর।

২৫ মে শনিবার সকাল ৬টার দিকে গোবিন্দপুর গ্রামে ম্যাডামের বাসায় প্রাইভেট পড়তে যাবার পথে গোবিন্দপুর গ্রামে বখাটে ওবায়দুর

ও তার সহযোগী কাবুল জোয়ারদার মোটরসাইকেলে এসে সুবর্ণার পথরোধ করে।

সুবর্ণা কুপ্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় বখাটে ওবায়দুর সুবর্ণার দুই পায়ে ও দুই হাতে হাতুড়ি দিয়ে বেদম মারপিট করে।

সুবর্ণার চিৎকারে স্থানীয়রা ছুটে আসলে বখাটেরা পালিয়ে যায়। সুবর্ণাকে উদ্ধার করে নড়াইল সদর হাসপাতালে স্থানীরা চিকিৎসার জন্য নিয়ে আসে।

সুবর্ণা জানান, তাকে ষষ্ঠ শ্রেণি থেকে বখাটে ওবায়দুর বিরক্ত করে আসছে।

নির্যাতিত ছাত্রী বর্তমানে নড়াইল সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

সদর হাসপাতালের কর্তব্যরত ডাক্তার আব্দুর রহমান জানান, “সুবর্ণার দুটি পায়ে ও দুটি হাতে হাতুড়ির আঘাতে ক্ষতবিক্ষত হয়েছে। সুস্থ হতে সময় লাগবে”।

সুবর্ণার বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. মহিদুর রহমান মুরাদ জানান, আগে সুবর্ণাকে বিরক্ত করবার অভিযোগ পাইনি।

লোহাগড়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) প্রবীর কুমার বিশ্বাস বলেন, গ্রেপ্তারেরচেষ্টা চলছে ঘটনার মূল হোতা ওবায়দুরকে।

সহযোগী কাবুল জোয়ারদারকে ঘটনার সঙ্গে সম্পৃক্ত থাকার অভিযোগে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।