পর্যটকদের ফিরেয়ে আনতে উপহার তুলে আনছে ডলফিন

0
282

পর্যটকদের ফিরেয়ে আনতে উপহার তুলে আনছে ডলফিন

করোনাভাইরাসের কারণে যে শুধু মানুষই স্বাভাবিক জীবন হারিয়েছে তা নয়, কিছু কিছু পশুপাখির জীবনও বদলে গেছে।

তারাও মানুষের সঙ্গ খুঁজছে। এমনই একটি ঘটনা ঘটেছে অস্ট্রেলিয়ায়। অস্ট্রেলিয়ার ক্যুইন্সল্যান্ড টিন ক্যান বে-তে সমুদ্রের ধারে একটি ক্যাফে আছে, ক্যাফেটির নাম ‘বারনাক্‌লস ক্যাফে অ্যান্ড ডলফিন ফিডিং’। নাম শুনেই বুঝতে পারছেন, ক্যাফেটিতে ডলফিনদের খাওয়ানোর ব্যবস্থা রয়েছে।

করোনাভাইরাস মহামারির কারণে বন্ধ রয়েছে ক্যাফেটি। ফলে বাইরে থেকে কেউ সেখানে আসছেন না। আর এতেই হয়েছে বিপত্তি। মানুষের অনুপস্থিতিতে মন খারাপ ডলফিনগুলি। পর্যটকদের আবার ফিরেয়ে আনতে প্রিতিদিনই উপহার তুলে আনছে সমুদ্রের তল দেশ থেকে।

ক্যাফেটির ফেইসবুক পেজে কিছু ছবি পোস্ট করা হয়। সেখানে দেখা যায়, ‘একটি ডলফিন সমুদ্রের তল দেশ থেকে মুখে করে প্রবাল, ঝিনুক, বোতল বা এ ধরনের জিনিস নিয়ে আসছে। ওই সৈকতে কর্মরত স্বেচ্ছাসেবীরা জানিয়েছে, এখন ঘটনা প্রতিদিনই ঘটছে।

সেখানকার এক স্বেচ্ছাসেবী লিন ম্যাকফ্যারসন স্থানীয় সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, ‘২৯ বছর বয়সের একটি পুরুষ ডলফিন ‘মিস্টিক’ রোজ এই রকম অন্তত দশটি করে উপহার নিয়ে আসছে। কেউ তাকে এই কাজের জন্য প্রশিক্ষণ দেয়নি। কিন্তু সেই যেন এখন এই উপহারের বদলে কিছু খাবার পাওয়াটা অভ্যাস করে ফেলেছে।‘

গত সোমবার ফেইসবুকে পোস্টটি করা হয়। গত শুক্রবার পর্যন্ত এই পোস্টটিতে দেড় হাজারের বেশি লাইক পড়েছে। সেই সাথে প্রায় সমান সংখ্যক কমেন্ট। কমেন্টগুলোতে ডলফিনগুলির প্রতি মানুষের ভালোবাসা প্রকাশ পাচ্ছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে