পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রী ধর্ষণ।

0
180

OURBANGLANEWS DESK।

নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে স্থানীয় মুদি ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে পঞ্চম শ্রেণির শিশুছাত্রীকে ধর্ষণের।

০৩ মে শুক্রবার সন্ধ্যায় এ ধর্ষণের ঘটনা ঘটে উপজেলার কালাপাহাড়িয়া ইউনিয়নের হাজিরটেক এলাকায়।

আড়াইহাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আক্তার হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, ঘটনার পর থেকে ধর্ষক আলাউদ্দিন পলাতক রয়েছে। তাকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

পুলিশ ও নির্যাতনের শিকার শিশুটির পরিবার জানায়, উপজেলার কালাপাহাড়িয়া ইউনিয়নের হাজিরটেক এলাকার ১০ বছরের একটি শিশু শুক্রবার সন্ধ্যা সাতটার দিকে ডিম কেনার জন্য একই এলাকার শেরন মিয়ার ছেলে মুদি দোকানি আলাউদ্দিন (৩৫) এর দোকানে যায়।

শিশুটি স্থানীয় একটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রী। শিশুটিকে একা পেয়ে আলাউদ্দিন শিশুটিকে জোর করে তার দোকানের ভেতরে নিয়ে সাটার বন্ধ করে দেয়। পরে শিশুটিকে ধর্ষণ করে।

শিশুটির বাড়িতে আসতে দেরি দেখে তার মা খুঁজতে ওই মুদি দোকানের সামনে গিয়ে দোকানটি বন্ধ পান।

তিনি এ সময় দোকান খোলার জন্য ডাকাডাকি করলে শিশুটি দোকানের ভেতর থেকে মায়ের গলার আওয়াজ পেয়ে চিৎকার দেয়।

ধরা পড়ে যাওয়ার ভয়ে ধর্ষক আলাউদ্দিন শিশুটিকে রক্তাক্ত অবস্থায় রেখে দোকানের পেছনের দরজা দিয়ে পালিয়ে যায়।

শিশুটির পরিবারের লোকজন ও এলাকাবাসী এসে শিশুটিকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়।

অবস্থা গুরুতর হওয়ায় তাকে পাঠানো হয় নারায়ণগঞ্জ সদরের ভিক্টোরিয়া জেনারেল হাসপাতালে।

ধর্ষিতা শিশুটির বাবা বাদী হয়ে শুক্রবার রাতে আড়াইহাজার থানায় আলাউদ্দিনের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করেন।

মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করে আড়াইহাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আক্তার হোসেন জানান,

‘পুলিশ অভিযুক্তকে আলাউদ্দিনকে গ্রেফতার করতে বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালাচ্ছে। তাকে শিগগিরই আইনের আওতায় আনা হবে।’