নাতিকে অশুভ ভেবে জ্বলন্ত চুলায় নিক্ষেপ।

0
200

OURBANGLANEWS DESK।

দাদা মাত্র দুই বছর বয়সী নাতিকে জ্বলন্ত চুলায় নিক্ষেপ করেছেন তার ভেতর অশুভ আত্মার ছায়া দেখার অভিযোগে।

পুলিশ বলছে, ৫৩ বছর বয়সী ওই ব্যক্তি নাতির ভেতর শয়তানের ছায়া দেখার অভিযোগে এ ধরনের কর্মকাণ্ড ঘটিয়েছেন।

ডেইলি মিরর, যুক্তরাজ্যভিত্তিক সংবাদমাধ্যমের এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, রাশিয়ায় ঘটনাটি ঘটেছে।

শিশুটিকে উদ্ধার করা হয়েছে। শিশটির শরীরের ৫০ শতাংশ পুড়ে গেছে। শিশুটি এখনো জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে রয়েছে।

সে বর্তমানে কোমায় রয়েছে এবং তার শ্বাস-প্রশ্বাস কৃত্রিমভাবে চালু রাখা হয়েছে।

ওসপেনিকভ রাশিয়ার ওমাস্ক অঞ্চলের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র জানান, এখন নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে রয়েছে ছোট্ট ওই রোগী।

এ ধরনের ঘটনায়, এটা বুঝে ওঠা কঠিন রোগী ঠিক কী পরিস্থিতিতে রয়েছে। চিকিৎসকদের পক্ষ থেকে সর্বোচ্চটা করা হচ্ছে শিশুটিকে সারিয়ে তোলার জন্ন্য।

পুলিশ বলছে, ওই ব্যক্তি নাতিকে গরম চুলায় ফেলে দেওয়ার সময় মদ্যপ ছিলেন। পুলিশ অভিযুক্ত ব্যক্তিকে আটক করেছে।

ওই ব্যক্তি তার স্ত্রীকে (শিশুর দাদি) ঘটনার সময় বাড়ি থেকে বের করে দিয়েছিলেন।

লোকজন জমায়েত করেন, ওই নারী ও পাশের বাড়ির আরেক নারী চিৎকার করে। পরে উদ্ধার করা হয় শিশুটিকে।

পুলিশ বলছে, অভিযুক্ত ব্যক্তিকে আটক করার সময়ও তিনি ভারী মাত্রায় মাদক গ্রহণ করা অবস্থায় ছিলেন। শিশুটির বাবা-মা ঘটনার সময় বাড়িতে ছিলেন না।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে