দলবেঁধে স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণ।

0
270

OURBANGLANEWS DESK।

এবার ৮ম শ্রেণির এক ছাত্রীকে দলবেঁধে ধর্ষণ করলো। এ গণধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে বগুড়ার পাথরঘাটা উপজেলায়।

অভিযোগ উঠেছে পুলিশ প্রশাসন মামলা নিচ্ছে না দলবেঁধে ধর্ষেণের ঘটনায়।

এ ঘটনার ভুক্তভোগী পাথরঘাটা সদর ইউনিয়নের মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণির নিয়মিত শিক্ষার্থী।

জানা গেছে ধর্ষিত ওই ছাত্রীর পরিবারের সদস্যদের অভিযোগ থেকে, তারা এ ঘটনায় গত বৃহস্পতিবার মামলা করতে চাইলে মামলা নেয়নি পাথরঘাটা থানার ওসি।

তবে এ পুলিশ কর্মকর্তা অস্বীকার করেছেন অভিযোগ।

জানা গেছে, পাথরঘাটা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ১৩ বছর বয়সী ওই ধর্ষিত কিশোরীকে ভর্তি করা হয়েছে।

এক মাস আগে তার মোবাইল ফোনে কথা হয় পাথরঘাটা উপজেলার পাথরঘাটা সদর ইউনিয়নের শাহজাহান প্যাদার ছেলে জলিল প্যাদার সঙ্গে।

পেশায় সে ফ্লেক্সিলোড ব্যবসায়ী। পরে জলিল তার সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলে তার ‘পরিচয় গোপন করে’ বেলাল পরিচয়ে।

জানা গেছে ওই স্কুলছাত্রীর অভিযোগ থেকে, জলিল তাকে বৃহস্পতিবার সকালে কৌঁশলে বানর দেখানোর কথা বলে ধর্ষণ করে হরিণঘাটা বনে নিয়ে।

এ সময় ঘটনাটি দেখে ফেলে আলতাফ হোসেন হরিনঘাটা এলাকার ট্রলার চালক। তাকে আলতাফও একপর্যায়ে ধর্ষণ করে।

মেয়েটি জানায় পরে তাকে হাসপাতালে নিয়ে যায় স্থানীয়রা উদ্ধার করে।

ওসি মো. হানিফ সিকদার অভিযোগের বিষয়ে জানান, কেউ থানায় আসেনি মামলা করার জন্য।

মো. তোফায়েল আহম্মেদ বরগুনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জানান, পুলিশের অভিযান অব্যহত রয়েছে এ ঘটনায় জড়িতদের আটক করতে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে