‘জাহালম’ জানে না তাকে নিয়ে তৈরী হচ্ছে সিনেমা।

0
218

মাহিন, OURBANGLANEWS DESK।


সোনালী ব্যাংকের সাড়ে ১৮ কোটি টাকা ঋণ জালিয়াতির আসামি আবু সালেক। অবাক করি বিষয় হলো আবু সিলেটের পরিবর্তে সাজাভোগ করছে নিরীহ পাটকল শ্রমিক জাহালম।

জাহালামকে আবু সালেক বানিয়ে আসামি করা হয় আরও ২৬টি মামলায় । জাহালমকে দুদকের মামলায় গ্রেপ্তার করা হয় ২০১৬ সালের ৬ ফেব্রুয়ারি। তিন বছর কারাভোগর পর হাইকোর্টের নির্দেশে গত ৩ ফেব্রুয়ারি তাকে মুক্তি দেয়া হয়।
মারিয়া তুষার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন টাঙ্গাইলের সেই জাহালমের জীবনের কষ্টের কাহিনি নিয়ে নির্মাণ করবেন সিনেমা।

ইতিমধ্যে চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতিতে নাম নিবন্ধন হয়েছে। জাহালমের নামের সঙ্গে মিলিয়ে ছবির নাম রাখা হয়েছে ‘জাহালম’ । আবারও অবাক হতে হয় কারন জহালম নিজে এ ব্যপারে কিছুই জানেন না।


মারিয়া তুষার পরিচালিত ও তুষার ফিল্মস প্রযোজিত ‘জাহালম’ ছবিটিতে জাহালমের চরিত্রে অভিনয় করবেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত রিয়াজুল রিজু। ‘বাপজানের বায়োস্কোপ’ নামের সিনেমা বানিয়ে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার অর্জন করেন তিনি ।

২০১৫ সালের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারে তাঁর পরিচালিত প্রথম সিনেমা ‘শ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্র’, ‘শ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্র পরিচালক’, ‘শ্রেষ্ঠ গায়ক’, ‘শ্রেষ্ঠ গীতিকার’, ‘শ্রেষ্ঠ সুরকার’, ‘শ্রেষ্ঠ কাহিনিকার’, ‘শ্রেষ্ঠ চিত্রনাট্যকার’ ও শ্রেষ্ঠ সম্পাদক’—মোট আটটি বিভাগে পুরস্কার অর্জন করে ।

জাহালমের চরিত্রে অভিনয়ের ব্যাপারটি ভীষণ চ্যালেঞ্জিং মনে করছেন রিয়াজুল রিজু। রিজু বলেন, ‘আমার প্রথম সিনেমা “বাপজানের বায়োস্কোপ” করার মতো চ্যালেঞ্জ বোধ করছি । কারণ প্রথম কোনো সিনেমায় কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করতে যাচ্ছি।’

জাহালমের জীবনী নিয়ে ছবি নির্মাণ প্রসঙ্গে মারিয়া তুষার বলেন, ‘টেলিভিশনে প্রথম জাহালমের খবরটি জানতে পারি । জাহালমের দুঃখের জীবনের সংবাদটা ছিল সাড়া জাগানো। তাঁর সাক্ষাৎকার দেখার পর মনে হলো, এটা নিয়ে কাজ করা উচিত। আমার কাছে ব্যাপারটা স্পর্শকাতরও মনে হয়েছে।’
মারিয়া তুষার জানান এ মাসেই জাহালমের সঙ্গে দেখা করবেন তিনি। জানালেন, এই ধরনের চাঞ্চল্যকর ঘটনা নিয়ে সিনেমা বানানোটা খুবই চ্যালেঞ্জিং। তার পরও সাধ্যমতো চেষ্টা করব।’


এদিকে নিজের জীবনী নিয়ে সিনেমা নির্মিত হওয়ার কথা জেনে খুব খুশি হয়েছেন জাহালম । তিনি বললেন, ‘আপনার কাছ থেকেই প্রথম শুনলাম ।

ব্যাপারটা ভালোই লাগছে। মিথ্যা মামলায় আমি অনেক কষ্ট করছি। আমার জীবনের সেই কষ্টের কথা সিনেমায়ও দেখা যাবে, এটাতে আমি অনেক বেশি আনন্দিত। আমি চাইব, বিনা দোষে যে শাস্তি পেয়েছি, এই ধরনের কোনো শাস্তি এ দেশের কেউ যেন আর না পায়। চলচ্চিত্রের মাধ্যমে সেই বিষয়গুলো সুন্দরভাবে যেন তুলে ধরা হয়।’

-সূত্র:প্রথম আলো।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে