ক্রাইস্টচার্চ হামলার অভিনব প্রতিবাদ কিউই ফুটবলারের।

0
361

মাহিন, OURBANGLANEWS DESK।


ক্রাইস্টচার্চের মসজিদে অর্তকিত সন্ত্রাসী হামলায় অবাক হয়েছে গোটা বিশ্ব। বাদ যায়নি ক্রীড়াঙ্গন ও। সহমর্মিতা ও প্রতিবাদ জজানিয়েছেন নিজ নিজ অবস্থান থেকে।

কিউইদের মানসিক দায়টা অন্যদের থেকে বেশি। দেশে ঘটে যাওয়া সন্ত্রাসী হামলা, সফরকারী (বাংলাদেশ) দলের সেখান থেকে অল্পের জন্য বেঁচে যাওয়া; এমতাবস্থায় চুপ করে বসে থাকেননি নিউজিল্যান্ড ক্রীড়াঙ্গনের খেলোয়াড়েরাও।

যে যাঁর মতো করে জানিয়েছেন সহমর্মিতা ও প্রতিবাদ। কস্তা বারবারোস এই প্রতিবাদের মিছিলে এক অনন্য নজির স্থাপন করলেন।

কাল রাতে মেলবোর্ন ভিক্টরি ২-১ গোলে জিতেছে ব্রিসবেন রোয়ারের বিপক্ষে। ২৯ বছর বয়সী নিউজিল্যান্ডের, উইঙ্গার কস্তা বারবারোস মেলবোর্নের হয়ে করেছেন দুটি গোল।

এই অমুসলিম ফুটবলার প্রথম গোলটি করেন ২৪ মিনিটে। এরপর মাঠের মধ্যে হাঁটু মুড়ে বসে নামাজের মতো করে ‘সিজদা’ করেন।

শুক্রবার ক্রাইস্টচার্চে মসজিদে সন্ত্রাসী হামলায় নিহত হয়েছেন বাংলাদেশিসহ সর্বমোট ৫০ জন। কম নয় আহতের সংখ্যাও। নিউজিল্যান্ড সফরে থাকা বাংলাদেশে ক্রিকেট দল অল্পের জন্য প্রাণে বেঁচে ফিরেছেন।

বারবারোস ম্যাচ শেষে সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় এই অভিনব প্রতিবাদ নিয়ে ফক্স স্পোর্টসকে বলেন, ‘সত্যি কথা বলতে, ভীষণ বিধ্বস্ত লাগছে।

ভীষণ আবেগের দিন। তাঁদের (হতাহত) কাছে এটা কিছু না, কিন্তু এটা বিশেষ কিছু।’ সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ব্যাপক আলোড়ন সৃষ্টি করেছে বারবারোসের এই গোল উদযাপন।

দল-মত-ধর্মনির্বিশেষে সবাই তাঁর প্রশংসায় পঞ্চমুখ।
বারবারোসের মতোই স্থানীয় লোকজন ও পাশে এসে দাঁড়িয়েছে সেখানকার ভীত-সন্ত্রস্ত মুসলমানদের। সবাই মিলে ব্যাবস্থা করেছে গন- অর্থায়নের।

হালাল খাবার এবং রাস্তাঘাটে মুসলিমের চলাচলে নিরাপত্তার ব্যবস্থাও করছে অমুসলিম জনগণ। মাঠে ‘সিজদা’ দিয়ে বারবারোস বুঝিয়ে দিয়েছেন, তিনি মুসলিম ভাইদের পাশে আছেন।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে