কর্মহীন মানুষদের খাবার পৌঁছে দিতে মাব্রুর রশীদ বান্নাহ

0
176

কর্মহীন মানুষদের খাবার পৌঁছে দিতে মাব্রুর রশীদ বান্নাহ

করোনাভাইরাস প্রাদুর্ভাবের কারণে কর্মহীন খেটে খাওয়া মানুষদের মুখে খাবার পৌঁছে দিতে এগিয়ে এলেন ছোট পর্দার জনপ্রিয় নির্মাতা মাব্রুর রশীদ বান্নাহ। এসময় ছোট পর্দার জনপ্রিয় অভিনেতা সিয়াম নাসির উপস্থিত ছিলেন।

জনপ্রিয় নির্মাতা মাব্রুর রশীদ বান্নাহ তার ভেরিফাইড ফেসবুক প্রোফাইলে এ সংক্রান্ত একটি পোস্ট শেয়ার করেন। পোস্টে সংযুক্ত ছবিতে দেখা যায় কয়েকজন যুবক একটি পিকাপ ভ্যানে অনাহারে থাকা মানুষদের মাঝে খাবার পৌঁছে দিচ্ছেন তাদের মধ্যে জনপ্রিয় নির্মাতা মাব্রুর রশীদ বান্নাহ ও জনপ্রিয় অভিনেতা সিয়াম নাসিরও ছিলেন।

এই পোষ্টের মাধ্যমে মাব্রুর রশীদ বান্নাহ তার ভক্তদের সাথে নতুন এক বান্নাহর পরিচয় করিয়ে দেন। এ কাজের মাধ্যমে তিনি তার ভক্তদের হৃদয়ের আরও গভীরে জায়গা করে নিলেন। ভক্তরা তার এমন কাজকে শ্রদ্ধা জানিয়েছেন।

তিনি পোস্টটিতে গায়ক এবং অভিনেতা তাহাসান খানকে বিশেষ কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন। এছাড়া অভিনেতা সিয়াম নাসির তার বন্ধুদের সহ এ কাজে সহায়তা করা পিকআপ ড্রাইভার, বাবুর্চি ও তার দলকে ধন্যবাদ ও ভালোবাসা জানিয়েছেন।

বান্নাহ তার পোস্টে গরীব, দুঃখীদের সাহায্য করা মানুষদের অজস্র সালাম জানান। পোষ্টের শেষে তিনি লিখেছেন, ‘আল্লাহ্ যতদিন সামর্থ্য দেবেন ততদিন যাবো, বার বার যাবো … অতি ক্ষুদ্র চেষ্টা চালিয়েই যাবো ইনশাআল্লাহ’।

পাঠকদের সুবিধার্থে তার পোস্টটি হুবুহু দেয়া হল,

“গতকাল রাতের কথা …
কিছু উপলব্ধি …
নিজের চোখে ক্ষুধার্ত মানুষের চোখগুলো দেখেছি … খাদ্য হাতে পেয়ে তাঁদের চোখে এক অদ্ভুত তৃপ্তি দেখেছি … কারো কারো দু’হাত শূন্যে দোয়ার জন্যও উঠতে দেখেছি … একজন বৃদ্ধাকে বলতে শুনেছি “আমার পোলাটা প্রতিবন্ধী, ওর প্যাকেটটা দিবেন না?” … একটা বাচ্চা ছেলেকে বলতে শুনেছি “আমার কুত্তাটা খায় নাই, ওর জন্য একটা প্যাকেট দ্যান ভাই” … হায় রে ক্ষুধা!
রাস্তার কুকুরগুলোও যেভাবে আমাদের পেছনে হন্যে হয়ে দৌড়াচ্ছিলো তা ছিলো অকল্পনীয় … ওদের আহারের ব্যাবস্থাও ছিলো আমাদের অতি ক্ষুদ্র প্রচেষ্টার অংশ …
আমাদের এই অতি ক্ষুদ্র প্রচেষ্টায় Tahsan ভাইয়ের অবদান ছিলো অনস্বীকার্য … আপনার প্রতি আবারো শ্রদ্ধা ভাই …
বাবুর্চি এবং তাঁর দল, পিক আপের ড্রাইভার, Siam Nasir এবং ওর বন্ধুদেরকে ভালোবাসা … ওরা সাথে না থাকলে আমার ক্ষুদ্র প্রচেষ্টাটা আরো জটিল হয়ে উঠতো …
নিজে স্বশরীরে খাদ্য বিতরণে মাঠে নেমে অনুধাবন করলাম এই মহামারীর সময়ে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে ত্রাণ সরবারহ, এবং বন্টনে এক্কেবারে মাঠে যাঁরা কাজ করেন, এবং প্রচন্ড পরিশ্রম করে যাচ্ছেন গরীব, অসহায় ও ক্ষুধার্ত মানুষদের বেঁচে থাকতে সাহায্য করবার জন্য, তাঁদের মানুষের প্রতি ভালোবাসার মাত্রাটা … সেইসব সাহসী প্রাণগুলোর প্রতি আমার অজস্র সালাম … তাঁদের প্রতি সম্মান আগে পাহাড়সম ছিলো, এখন পর্বত সমান …
তবে শেষ কথা, আল্লাহ্ যতদিন সামর্থ্য দেবেন ততদিন যাবো, বার বার যাবো … অতি ক্ষুদ্র চেষ্টা চালিয়েই যাবো ইন শা আল্লাহ …”

মাব্রুরর রশীদ বান্ননাহর এই পোস্টের পর অনেকে তার মাধ্যমে দরিদ্র, অনাহারী মানুষদের সাহায্য করতে চাইলে তিনি আর একটি পোষ্টের মাধ্যমে জানান, এই কাজ তিনি তার ব্যাক্তিগত উদ্যোগে করছেন। তিনি আরও বলেন, কেউ গরীব, দুঃখীদের সাহায্য করতে চাইলে তারা যেন সেই অর্থ “বিদ্যানন্দ” বা ওই রকম কোন অথেনটিক সংগঠনকে ডোনেট করেন।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে