করোনা ভাইরাসে ক্ষতিগ্রস্থ বিশ্ব অর্থনীতি, আশঙ্কা দেশের অর্থনীতি নিয়েও

0
270

করোনা ভাইরাসে ক্ষতিগ্রস্থ বিশ্ব অর্থনীতি, আশংকা দেশের অর্থনীতি নিয়েও

বশীর আহম্মেদ, কালের সমাচার ।

করোনা ভাইরাসের ছোবলে মানুষের প্রাণনাশের পাশাপাশি হুমকির মুখে বিশ্বঅর্থনীতি। ২০২০ সালে বিশ্ব অর্থনৈতিক মন্দা ছাড়াতে পারে ২০০৮ এর বিশ্বমন্দাকেও, বলছে ওয়ার্ল্ড ইকোনোমিক ফোরাম।

ছবিঃ ওয়ার্ল্ড ইকোনোমিক ফোরাম
করোনা ভাইরাসের কারনে পৃথিবীর বেশির ভাগ দেশ আছে লকডাউন কিংবা কোয়ারাইন্টাইনে। ফলে আমদানি-রপ্তানী, ট্যুরিজম, খেলাধুলা, বিনোদনসহ প্রায় সব খাতই প্রায় বন্ধ। বিশ্ব দেখতে যাচ্ছে আরেকটি অর্থনৈতিক মন্দা।
এমনটাই ধারনা করছে ওয়ার্ল্ড ইকোনোমিক ফোরাম।
ডয়েচে ভেলের এক রিপোর্ট বলছে বিশ্বের প্রায় সব ধনী দেশের শেয়ার বাজারে বছরের শুরুর তুলনায় ধস নেমেসে প্রায় ৩০% । যুক্তরাষ্ট্রে প্রায় ৭০ লক্ষ লোক বেকার হয়ে পড়ছে। বন্ধ রয়েছে হোটেল, রেস্টুরেন্ট, বিনোদনকেন্দ্র, খেলাধুলার প্রায় সব প্রতিষ্ঠান। ফলে, হুমকির মুখে বিশ্ব অর্থনীতি।
করোনা ভাইরাসের উৎপত্তিস্থল চায়নার জিডিপি প্রায় ১০% পড়ে যাবে আর ক্ষতিগ্রস্থ হবে বিশ্ব জিডিপির ৫০%।

এমন অবস্থায় যখন বিশ্ব অর্থনীতি, তখন দেশের অর্থনীতিও হুমকির মুখে। প্রধানমন্ত্রী ইতিমধ্যে ৭২ হাজার ৭৫০ কোটি টাকার প্রনোদনা প্যাকেজ ঘোষনা করেছেন। যা কিছুটা হলেও দেশের বিভিন্ন খাতকে চাঙ্গা রাখতে সহায়তা করবে। তবে প্রশ্ন হল সর্বোপরি বিশ্ব অর্থনীতির যখন এই অবস্থা তখন দেশের অর্থনীতি কি টিকে থাকতে পারবে বর্তমান অবস্থায়?
ইতিমধ্যে বেশিরভাগ রপ্তানী প্রতিষ্ঠানের রপ্তানী আদেশ বন্ধ হয়েছে। বিজিএমইএ বলছে ক্রেতারা পণ্য নিতে চাচ্ছে না, যার ফলে ক্ষতিগ্রস্থ হবে গার্মেন্টসগুলো। বন্ধ রয়েছে দেশের পর্যটন খাতও। বিদেশ থেকে গত কয়েক বছরের তুলনায় কম রেমিট্যান্স আসার শঙ্কা রয়েছে।
এসব কিছু সর্বোপরি ক্ষতি করবে দেশের অর্থনীতিকেও, মনে করছেন অর্থনীতিবিদেরা।

এমন অবস্থায় যখন বিশ্ব তখন এই মহামারী থেকে দ্রুত কাটিয়ে উঠার আশা করা ছাড়া আর কি ই করতে পারে মানুষ?

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে