ওজন বেড়েই চলেছে , প্রোটিন দিয়েই রুখে দিন মেদ।

0
191

OURBANGLANEWS DESK।

ভাত-রুটি থেকে মাছ-মাংসে বেশি টান। সন্তানের প্রতি মা-বাবার এ অভিযোগ নতুন নয়। আর এতেই তারা মোটা হয়ে যাচ্ছে

বলেও মনে করেন অনেকেই। রাস্তার খাবার, মানসিক চাপ ইত্যাদি মোটা হওয়ার শতেক কারণ বলে মেনে নিলেও, প্রোটিনের

প্রশ্নে কোনও নম্বর দিচ্ছেন না আধুনিক বিজ্ঞান। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, হাই-প্রোটিন ডায়েট থাকলে শরীরের ওজন বৃদ্ধি পায় না, বরং উল্টোটাই হয়।

পুষ্টিবিদের মতে, ‘‘ প্রোটিন জাতীয় খাবার অল্প খেলেই পেট ভরে যায়। ফলে বেশি পরিমাণে খাবারের প্রয়োজন হয় না।

এছাড়া প্রোটিন হজমেও তুলনামূলক ভাবে বেশি সময় লাগে। তাই খিদে পায় কম।’’

প্রতি দিন ঘুরিয়েফিরিয়ে কিছু প্রোটিন রাখতে পারেন। কার্বোহাইড্রেট ও বেশ কিছুটা ফ্যাট বাদ দিতে পারেন।

মেদ ঝরাতে নানা কসরত ও শরীরচর্চার পাশাপাশি খাবারে কোন কোন প্রোটিনে জোর দিতে হবে জেনেনি চুলুন ।

ডিম

অমলেট, ডিম পাউরুটির ডিমপ্রীতিতে বাচ্চারা মিশে গিয়েছে আজ। চিকিৎসকরা পরামর্শ দিচ্ছেন এই ডিম পাতে রাখতেই হবে ওজন ধরে রাখতে।

তার প্রধান কারণ ডিমে আছে জরুরি অ্যামিনো অ্যাসিড, আয়রণ ও অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট।

তবে খুব মশলাদার পদ্ধতিতে অমলেট বা ডিমের কারি নয়, বরং ওজনে হ্রাস টানতে আস্থা রাখুন পোচ, সেদ্ধ ডিম বা হাফ বয়েলে।

সয়া প্রোটিন

ডায়েটে রাখতে পারেন সোয়াবিনের টোফু। এক মাসেই বুঝতে পারবেন ম্যাজিক। সোয়াবিনের টোফুর ক্যালশিয়াম আপনার হারকেও সমৃদ্ধ করবে।

সয়াবিন এমনিতেই উদ্ভিজ্জ প্রোটিনের সবচেয়ে বড় উৎস। এতে শরীরের মেদ যেমন ঝরে তেমনই শরীর গঠনের কাজটিও সুষ্ঠু ভাবে হয়।

দই

ঘরে পাতা দইয়ে রয়েছে প্রচুর প্রোবায়োটিক, প্রোটিন, জিঙ্ক ও ফসফরাসের মতো উপাদান। বাজে কোলেস্টরেল রুখতে এর কোনও বিকল্প নেই।

মেটাবলিজম বাড়াতে ও চেহারাকে টোনড করে তুলতে চিনি ছাড়া টক দইয়ের কোনও জবাব নেই।

বাদাম

আমন্ড বা ওয়ালনাট স্বাস্থ্যকর প্রোটিনের অন্যতম উৎস। শরীরের ওজন ধরে রাখতে রোজ একমুঠেো বাদাম রাখুন সন্ধের ডায়েটে।

তবে বাদামে ফ্যাটও থাকে অনেকটা। তাই আমন্ড, ওয়ালনাট, চিনেবাদাম মিশিয়ে ২৫ গ্রাম মতো বাদাম রাখুন ডায়েটে।

মাছ

অনেকেই মাছ নিয়ে ভুল ধারণায় ভোগেন। তেলযুক্ত মাছ মানেই মোটা হচ্ছি এই ধারণাকে একদম বাতিল করুন।

বরং মাছের তেলের ওমেগা থ্রি ফ্যাটি অ্যাসি়ড ও মাছের মধ্যে থাকা প্রোটিন আপনার শরীরে অতিরিক্ত ফ্যাট জমতেই দেবে না।

সামুদ্রিক মাছও বেশ ভাল। রোগা হতে গেলে সঙ্গের ভাতটা বর্জন করুন।

বরং আটার রুটিতে ভরসা রাখুন, তাও এক বারে দু’টির বেশি নয়। বরং তরকারি, মাছ, মাংস, দই খেয়ে পেট ভরান।

চিকেন

স্ট্রু হোক বা একেবারে নামমাত্র তেল-মশলায় সব্জি যোগ করে হালকা করে রান্না করা চিকেন— মেদ ঝরাতে এর ভূমিকাও কম নয়।

চিকেন সহজপাচ্য অথচ অনেকটা পেট ভরায়। শরীরের প্রয়োজনীয় পুষ্টিগুণেরও জোগান দেয়। কোলেস্টেরল বেড়ে যাওয়ার ভয়ও নেই।