এক বছর ধরে সকল সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম বন্ধ চাদে।

0
483

OURBANGLANEWS DESK।

২৮ মার্চ ২০১৮ সাল। ফেসবুক, ইউটিউবসহ সব সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম বন্ধ করে দেওয়া হয় আফ্রিকার দেশ চাদে।

ক্যালেন্ডারের পাতা উল্টে ঠিক এক বছর পার হয়ে গেল। পার হলো আরেক ২৮ মার্চ। অথচ সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম দেশটিতে বন্ধ করার পর, এখনো কোন নামগন্ধ নেই খোলার!

তাই বিশ্বের অন্যতম দরিদ্র এই দেশটির মানুষেরা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের স্বাদবঞ্চিত হয়ে আছেন পুরো এক বছর ধরে।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম কেন বন্ধ করা হয়েছিল?

২০১৬ সালে প্রেসিডেন্ট ইদ্রিস ডেবি ক্ষমতায় আসেন দেশটিতে সর্বশেষ নির্বাচনে জিতে। তাঁর বিরুদ্ধে সমালোচনা ও বিক্ষোভ তীব্র হতে থাকে দেশজুড়ে, তাঁর ক্ষমতায় আসার পর থেকেই।

বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়, দেশটিতে সরকারবিরোধী আন্দোলন খুব দ্রুত সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের ব্যবহারে ছড়িয়ে পড়ছিল।

ইন্টারনেট তখন সরকারের জন্য ছিল বড় এক হুমকির নাম। তাই দেশটির সরকার গত বছরের ২৮ মার্চ

সাধারণ জনগণের প্রতিবাদের পথ সংকুচিত করে দিতে ফেসবুক, টুইটার, ইউটিউবসহ সব ধরনের সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম বন্ধ করে দেয়।

সরকারের এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া যে উদ্দেশ্যে, বেশ সফলই বলতে হবে সেটিকে। সামাজিক দেশটিতে প্রকাশ্যে বিক্ষোভের হার যোগাযোগমাধ্যম বন্ধ করে দেওয়ার পর থেকে কমে গেছে অনেকটাই।

বিবিসির কাছে দেশটির এক বিখ্যাত ব্লগার বলেছেন, ‘সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রবেশাধিকার ছাড়া মনে হচ্ছে যেন কয়েদ ছাড়া কারাগারে আছি।’

যা বলছে সরকার

এই অবস্থার জন্য সাধারণ জনগণ, সরকারকে দায়ী করে এলেও দীর্ঘ সময় ধরে কর্তৃপক্ষ ছিল চুপ করে। এই ব্যাপারে দায়িত্ব নিতে অনেক মন্ত্রীই জানিয়েছেন অস্বীকৃতি।

দায়িত্বশীল কর্মকর্তা ডাক যোগাযোগ ও ইলেকট্রনিক বিভাগের বলেছেন, তাঁরা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম বন্ধ করেছেন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের নির্দেশে।

ওমর ইয়ায়া হিসেইন সরকারের মুখপাত্র বিবিসিকে গত বুধবার বলেছেন, ‘নিরাপত্তাজনিত কারণে’ বহাল রাখা হয়েছে এই নিষেধাজ্ঞা।

বিদ্রোহীরা এখনো প্রতিবাদ চালিয়ে যাচ্ছে দেশটিতে। তবে বিদ্রোহীরা তরুণ প্রজন্মকে তাদের দলে টানতে হিমশিম খাবে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম বন্ধ থাকলে, এমনটা সরকারের বিশ্বাস।

এ ছাড়া সরকার, সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম বন্ধ রেখেছে বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ড ও মারধরের ভিডিও ছড়িয়ে পড়া বন্ধ করতে, বিবিসি বলেছে এমনটা।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে